ডি ভিলিয়ার্স সমালোচনার হাত থেকে বাঁচতেই অবসরে

আর কিছুদিন পর শুরু হতে যাচ্ছে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। ডি ভিলিয়ার্স শেষ বিশ্বকাপ খেলেছিলেন ২০১৫ বিশ্বকাপ। ফর্মে ছিলেন তিনি।

বিশ্বকাপে দক্ষিন আফ্রিকার হয়ে সবচাইতে বেশি রান করা খেলোয়াড় ও ডি ভিলিয়ার্স। ইংল্যান্ড বিশ্বকাপেও তার খেলার কথা ছিলো। কিন্তু হটাত করেই নিয়েছেন অবসর। হঠাৎ করে জাতীয় দল থেকে বিদায় নেয়া প্রসঙ্গে সম্প্রতি ভিলিয়ার্স বলেন, আসলে অদ্ভুত এক পরিস্থিতিতে আমাকে অবসর নিতে হয়েছিল। ক্রিকেট জীবনের শেষ তিন বছরে বলা হচ্ছিল আমি যখন খুশি খেলি আবার যখন খুশি নিজেকে গুটিয়ে নেই। এই সমালোচনার হাত থেকে বাঁচতেই খেলা ছেড়ে দিলাম। তা ছাড়া আরো কিছু কারণ আছে।

ভিলিয়ার্স আরও বলেন, ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে আমারও খেলার স্বপ্ন ঠিল। কিন্তু পুরনো সমালোচনাটা ফিরে আসতে পারে। সেই চিন্তা থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আসলে একটা পাউরুটির টুকরোর দুই দিকে তো আর মাখন লাগানো যায় না। নিজেকে সিদ্ধান্ত নিতে হয়, পাউরুটির কোন অংশটা শুকনো থাকবে। সেই চিন্তা থেকেই অবসরে যাওয়া। ক্রিকেট থেকে হঠাৎ অবসর নিয়ে ভিলিয়ার্স বলেন, টানা ১৫ বছর খেলেছি দেশের হয়ে। ক্রিকেট জীবন ব্যস্ততার, যন্ত্রণারও বটে। সারাক্ষণ একজন ক্রিকেটারকে চাপে থাকতে হয়, যা ভেতরে ভেতরে ক্ষয়ের ক্ষত তৈরি করে। কেউ অধিনায়ক হলে যন্ত্রণাটা বাড়ে আরো। পারিবারিক জীবনে ঝড়-ঝাপ্টা আসে। তাই যেসব কারণে হঠাৎ খেলা ছেড়ে দিলাম।

নকশী টিভি'র সকল অনুষ্ঠান সরাসরি দেখতে ক্লিক করুনঃ সরাসরি সম্প্রচার

ইউটিউবে নকশী টিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন নকশী টিভির ইউটিউব চ্যানেল

মন্তব্য যোগ করুন

Your email address will not be published.