এক লাখ টন কয়লা আমদান করবে সরকার; বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী

আজ সচিবালয়ে বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ঈদপরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় শেষ বিদ্যুৎ, খনিজ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন;
দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য জরুরি প্রয়োজন মেটাতে এক লাখ টন কয়লা আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, এক লাখ টন কয়লা আমদানির টেন্ডার হয়ে গেছে। এ বছরের সেপ্টেম্বর নাগাদ দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু হবে। তবে পুরোপুরি চালু হতে অক্টোবর লেগে যাবে। প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, জনগণের ওপর যেন কোন চাপ না পড়ে সেদিকে নজর রেখেই আমরা প্রস্তাব দিয়েছি। তবে কোন দেশ থেকে কয়লা আমদানি করা হচ্ছে, তা এখনও ঠিক হয়নি। খুব শীঘ্রই তা জানা যাবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

দিনাজপুরের কয়লাখনির প্রসঙ্গে নসরুল হামিদ বলেন, খনিতে যে কোনো সমস্যা হতে পারে। আপদকালীন মজুদ হিসেবে এ কয়লা আনা হচ্ছে।

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি থেকে কয়লা চুরির প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি থেকে যে কয়লা চুরি হয়েছে তা ২০০৫ সাল থেকে শুরু হয়েছে। এটি দুদিনে ঘটেনি। ‘যে পরিমাণ কয়লা চুরি হয়েছে তা বহন করে নিতেও ৩০ হাজার ট্রাক লেগেছে। ভাগ্য ভালো যে শেখ হাসিনা সরকারের সময় এটি ধরা পড়েছে। শেখ হাসিনা সরকার যে কোনো দুর্নীতি বরদাশত করে না তার প্রমাণ এটি।’
বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ হয়ে না গেলে চুরির বিষয়টি আমরা জানতাম না বলে মন্তব্য করেন জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী।

ইউটিউবে নকশী টিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন নকশী টিভির ইউটিউব চ্যানেল

ফাইনাল ফিটিং | কমেডি নাটক

Free Hit Counter