যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের কাছে দেয়া বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন প্রিয়া সাহা – ভিডিও

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের কাছে বাংলাদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর নির্যাতনের অভিযোগ করে দেয়া বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়ে ভিডিও ছেরেছেন এ সময়ের আলোচিত প্রিয়া সাহা।

তার দাবি করে বলেন, ৩ কোটি ৭০ লাখ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানের নিখোঁজ হওয়ার যে ‘তথ্য’ তিনি প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে দিয়েছেন,তা সরকারি পরিসংখ্যান থেকেই নেওয়া। অধ্যাপক আবুল বারকাত ওই পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে ২০১১ সালে একটি গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ করেন, যা সে সময় গণমাধ্যমেও আসে।

প্রিয়া সাহা কেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের কাছে বিষয়টি তুললেন ধরেছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন,

এই কথাগুলো তো মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কথা। ২০০১ সালে যখন সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্বাচনোত্তর চরম নির্যাতন চলছিল ৯৪ দিন ধরে, আজকের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তখন বিরোধী দলীয় নেত্রী। তিনি বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের রক্ষা করার জন্য সারা পৃথিবীতে ঘুরেছেন। সমস্ত জায়গায় বক্তব্য দিয়েছেন।

“তার কথায় অনুপ্রাণিত হয়ে, তার অনুসরণে আমি বলেছি। যে কোনো অন্যায়ের বিরুদ্ধে যে কোনো জায়গায় বলা যায়- এটা আমি তার কাছে শিখেছি।”

বাংলাদেশের নেতারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির যে কথা বলেন, তার সঙ্গে যে প্রিয়া সাহার বক্তব্য মিলছে না- সে বিষয়েও তার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছিল সাক্ষাৎকারে।

উত্তরে তিনি বলেন, ২০০১ সালের পর (বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময়) সারা দেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায় যে নৃসংশতার শিকার হয়েছিল, বর্তমানে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে তা ‘ব্যাপক হারে’ কমে এসেছে।

“মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মৌলবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করেছেন। আমেরিকাও মৌলবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। মার্কিন সরকার যাতে এ বিষয়ে আমাদের সরকারের সাথে একসঙ্গে কাজ করতে পারে এ কারণে আমি এ কথা গুলো বলেছি।

নকশী টিভি'র সকল অনুষ্ঠান সরাসরি দেখতে ক্লিক করুনঃ সরাসরি সম্প্রচার

ইউটিউবে নকশী টিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন নকশী টিভির ইউটিউব চ্যানেল

সাম্প্রতিক খবর